আর্কাইভ কনভাটার ঢাকা, মঙ্গলবার, জুন ২১০, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Logo

The father threw the child from the bridge

কন্যা শিশুকে ব্রিজ থেকে ছুড়ে ফেলে মারলেন বাবা

Bijoy Bangla

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ১১:২০ পিএম

কন্যা শিশুকে ব্রিজ থেকে ছুড়ে ফেলে মারলেন বাবা
নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ। সংগৃহীত ছবি

হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচংয়ে ব্রিজের নিচে জলাশয় থেকে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা করা হয়েছে। শিশুটির মা ইয়াসমিন বেগম শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) বানিয়াচং থানায় এ হত্যা মামলা করেন। 

মামলায় সাবেক স্বামী ও তার এক সহযোগীকে আসামি করা হয়েছে। মৃত দেড় বছর বয়সী এনি আক্তার সিলেটে টিলাগড় এলাকার ইমরান আহমেদ ও ইয়াসমিন বেগমের মেয়ে।

এর আগে, গত ৩০ জানুয়ারি হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলায় শুটকি নদীর শাখায় কাগাপাশা ব্রিজের নিচে এক শিশুর ভাসছিল। পরদিন সরকারি সিদ্ধান্তে বেওয়ারিশ হিসেবে শিশুটিকে দাফন করা হয়। দাফনের পর গণমাধ্যমে ছবি দেখে মা এসে এনিকে শনাক্ত করে তার সাবেক স্বামীসহ দুজনের নামে মামলা করেন।

বাদীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, এক পুত্রসন্তানসহ ইমরানকে বিয়ে করেছিলেন ইয়াসমিন বেগম। এরপর শিশু এনির জন্ম হয়। কয়েক বছর সংসার করার পর দুজনের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তবে ইমরান তার শিশুর ভরণ পোষণের জন্য প্রতি মাসে দুই হাজার টাকা পাঠাবেন বলে সিদ্ধান্ত ছিল। কিন্তু সেই টাকা ইমরান সম্প্রতি পাঠাচ্ছিলেন না। এ নিয়ে দুজনের ঝগড়া হয় এবং ইমরানকে ইয়াসমিন বেগম জানান, মেয়ে অসুস্থ, তাকে চিকিৎসা করাতে হবে।

পরে চিকিৎসা করানোর কথা বলে গত ২৯ জানুয়ারি রাতে ইয়াসমিন ও মেয়ে এনিকে ট্রাকে তুলে নেন ইমরান। সিলেট থেকে ট্রাকটি বানিয়াচংয়ের কাগাপাশা ব্রিজে উঠলে মেয়েকে ছুড়ে পানিতে ফেলে দেন। এরপর ইয়াসমিনকে নবীগঞ্জের একটি রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে ইমরান তার আরেক সহযোগীকে নিয়ে পালিয়ে যান।

বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন বলেন, ‘বাদীর অভিযোগ আমলে নিয়ে ইমরানকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। তদন্তে পাওয়া সিদ্ধান্তে ভিত্তি করে মামলার বাকি প্রক্রিয়া চলমান থাকবে।’

google.com, pub-6631631227104834, DIRECT, f08c47fec0942fa0