আর্কাইভ কনভাটার ঢাকা, মঙ্গলবার, জুন ২১০, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Logo

To remove ringworm

দাদ দূর করার ঘরোয়া উপায়,জেনে নিন

Bijoy Bangla

অনলাইন ডেস্ক:

প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল, ২০২৪, ০৬:২৪ পিএম

দাদ দূর করার ঘরোয়া উপায়,জেনে নিন
.....প্রতীকী ছবি

গরমের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ঘামের পরিমাণও। সেইসঙ্গে ধুলো-ময়লা যোগ হয়ে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি করছে। নানা ধরনের ছত্রাকের সংক্রমণে ত্বকে এসব সমস্যা দেখা দেয়। এর মধ্যে একটি হলো দাগ। এটি হলে ত্বকে গোল গোল ছোপ পড়ে ও চুলকায়। সব বয়সীদের ক্ষেত্রেই এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ভয় থাকে।

দাদ কিন্তু ভীষণরকম ছোঁয়াচে একটি অসুখ। এটি মাথার ত্বক থেকে শুরু করে হাত, পা, পিঠ এবং শরীরের বিভিন্ন ভাঁজে দেখা দিতে পারে। শরীরের যেসব স্থানে সহজে ঘাম শুকায় না যেমন কুঁচকি বা বগলের মতো জায়গা সেসব স্থানে এটি বেশি হয়। দাদ প্রথমে থাকে লালচে গোল গোল বা ডিম্বাকৃতির ছোপের মতো। এরপর চুলকানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এর আকৃতিও বাড়তে থাকে।

দাদ দূর করার বিভিন্ন ধরনের ওষুধ পাওয়া যায়। তবে সেসব ওষুধে থাকতে পারে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ভয়। যে কারণে সবচেয়ে ভালো হয় এই সমস্যা দূর করার ঘরোয়া উপায় জানা থাকলে। এতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই দাদের সমস্যা দূর করা সহজ হবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

সাবান পানিতে পরিষ্কার

দাদ আক্রান্ত স্থান সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে। এভাবে পরিষ্কার রাখলে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ভয় থাকবে না। দাদের সংক্রমণ রোধ করার ক্ষেত্রে সাবান মিশ্রিত পানি বেশ কার্যকরী। সেজন্য আপনাকে প্রতিদিন আক্রান্ত স্থান পানি এবং সাবান দিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে। এরপর সেটি ভেজা রাখলে চলবে না। শুকনো ও পরিষ্কার কাপড় দিয়ে আলতো হাতে মুছে নিতে হবে। নিয়মিত এভাবে পরিষ্কার করলে উপকার পাবেন।

হলুদ

হলুদে আছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য। উপকারী এই ভেষজ কাজ করে অ্যান্টিফাঙ্গাল হিসেবেও। যে কারণে এটি ত্বকের যেকোনো ধরনের সংক্রমণ রোধ করতে পারে। দাদ দূর করার জন্য হলুদের ব্যবহার করতে চাইলে প্রথমে তাজা হলুদ বাটা কিংবা হলুদ গুঁড়া নিন। এরপর তাতে সামান্য পানি মিশিয়ে ঘন একটি পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে। হলুদের এই পেস্ট শরীরের আক্রান্ত স্থানে সরাসরি লাগিয়ে শুকিয়ে নিন। এভাবে ব্যবহার করলে উপকার পাবেন দ্রুতই।

নারিকেল তেল

নারিকেল তেলের রয়েছে মাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য। যে কারণে এই তেলও দাদের সংক্রমণ দূর করার ক্ষেত্রে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে। নারিকেল তেল দাদ ছাড়াও অন্যান্য ছত্রাক সংক্রমণের ক্ষেত্রে একই ভূমিকা রাখতে পারে। বাড়িতে নারিকেল তেল আছে নিশ্চয়ই? আগে খেয়াল করে দেখুন সেটি খাঁটি নারিকেল তেল কি না। খাঁটি হলে সেখান থেকে কিছুটা তেল নিয়ে গরম হতে দিন। গরম হলে কিছুটা ঠান্ডা করে হালকা গরম অবস্থায় আক্রান্ত স্থানে ব্যবহার করুন। দিনে তিনবার এভাবে ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।


google.com, pub-6631631227104834, DIRECT, f08c47fec0942fa0