আর্কাইভ কনভাটার ঢাকা, বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Logo

logo

বেসিক ব্যাংক একীভূত করার প্রক্রিয়া বন্ধের দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন

Human chain in Rajshahi


নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত:  ১৭ জুন, ২০২৪, ০৭:৫২ পিএম

বেসিক ব্যাংক একীভূত করার প্রক্রিয়া বন্ধের দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন
বেসিক ব্যাংক একীভূত করার প্রক্রিয়া বন্ধের দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন

সিটি ব্যাংকের সঙ্গে রাষ্ট্রমালিকাধীন বেসিক ব্যাংক লিমিটেড একীভূত করার প্রক্রিয়া বন্ধের দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টা থেকে ঘণ্টব্যাপী নগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে এ কর্মসূচির আয়োজন করে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ। এছাড়া রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, রাজশাহী রেশম মালিক সমিতি, বেনেতি ব্যবসায়ী সমিতি, রাজশাহী বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতি, পাদুকা ব্যবসায়ী সমিতিসহ নগরের অন্তত ১৪ টি ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।  

বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রাজশাহী অঞ্চলের বেশীরভাগ ব্যবসায়ী নিরাপদ ব্যাংকিং সেবা হিসেবে বেসিক ব্যাংকের সঙ্গে লেনদেন করে থাকেন। তবে অতি সম্প্রতি বেসিক ব্যাংককে অলাভজনক সিটি ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করার প্রক্রিয়া চলছে। এটি হতে দেওয়া হবে না বলে রাজশাহী, নওগা, নাটোর ও চাপাইনবাবগঞ্জের ব্যবসায়ীরা হুঁশিয়ারি উচ্চারন করেন। তারা বলেন, অবিলম্বে ব্যাংক একীভূত করার পাঁইতারা বন্ধ না হলে আগামীতে এ অঞ্চলে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলা হবে। 

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও কাউন্সিলর রজব আলীর সভাপতিত্তে মানববন্ধন চলাকালে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী রেশম শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি লিয়াকত আলী, রাজশাহী চেম্বারের সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকু, রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. জামাত খান, লক্ষীপুর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আনিসুর রহমান, রাজশাহী চেম্বারের পরিচালক এসএম আইয়ূব আলী, নাটোর ব্যবসায়ী সমিটির সভাপতি মশিউর রহমান, রাজশাহী বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি শ্রী অশোক কুমার শাহ, পাদুকা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সফিকুর রহমান রিপন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুর রহমান, বেনেতি ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মহেশ সরকার, বাপাউবো সম্মিলিত ঠিকাদার সমাজের আহবায়ক প্রকৌশলী খাজা তারেক, রাজশাহী মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মর্জিনা পারভীন, বেসিক ব্যংকের গ্রাহক ও ব্যবসায়ী কেএম জোবায়েদ, ওয়েব রাজশাহীর সভাপতি আনজুমানারা বেগম, নারী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সেলিনা বেগম, হড়গ্রাম বাজার ব্যসায়ী সমিতির প্রতিনিধি জাহিদ বাবু প্রমুখ।

এদিকে বেসিক ব্যাংক সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দেশে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের বিকাশ ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে ১৯৮৯ সালে রাষ্ট্রমালিকাধীন বেসিক ব্যাংক লিমিটেড প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। জন্মলগ্ন থেকেই দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নে এই ব্যাংক অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকটির ব্যবসায়িক কার্যক্রমের ব্যাপক সম্প্রসারণ ঘটেছে। বেড়েছে সেবার পরিধি। সরকারী ব্যাংকগুলোর মধ্যে বেসিক ব্যাংকই সর্বপ্রথম শতভাগ অনলাইন ভিত্তিক ব্যাংকিং ব্যাবস্থা চালু করে।  বেসিক ব্যাংকের অর্থায়নে দেশীয় বহু শিল্প ও ব্যাবসায়িক প্রতিষ্ঠান দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। জন্মলগ্ন থেকেই দেশের সকল সরকারী ও বেসরকারী ব্যাংকের মধ্যে বেসিক ব্যাংক লিমিটেড ই ছিল সবচেয়ে ভালো এবং লাভজনক ব্যাংক।  

বর্তমানে বেসিক ব্যাংক লিমিটেড ১০৭ টি শাখা ও উপশাখার মাধ্যমে দেশব্যাপী নানা সুবিধাসহ বিভিন্নমুখী ব্যাংকিং সেবা পৌছে দিচ্ছে তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত। দেশের বহু সরকারী, বেসরকারী, বহুজাতিক ও খ্যাতনামা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দৃঢ় আস্থার সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ বেসিক ব্যাংক লিমিটেড এর সাথে বিভিন্ন ধরনের হিসাব পরিচালনা করে আসছে।

বর্তমানে বেসিক ব্যাংক লিমিটেড এর অধিকাংশ শাখা লাভে আছে, সরকার কিছু সুবিধা প্রদান করলেই ব্যাংকটি অতিদ্রুত লাভজনক ব্যাংক হিসেবে ঘুরে দাড়াতে পারবে।


google.com, pub-6631631227104834, DIRECT, f08c47fec0942fa0