আর্কাইভ কনভাটার ঢাকা, শনিবার, জুন ১১০, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Logo

logo

রাজশাহী পুলিশ লাইন্‌স স্কুল অ্যান্ড কলেজের বই উৎসব ও স্কুল বাসের উদ্বোধন

book festival


নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রকাশিত:  ১৫ জুন, ২০২৪, ০১:৩১ পিএম

রাজশাহী পুলিশ লাইন্‌স স্কুল অ্যান্ড কলেজের বই উৎসব ও স্কুল বাসের উদ্বোধন

আজ বছরের প্রথম দিন। প্রতি বছরের মতো এবারও বছরের প্রথম দিনে প্রাথমিকে বই উৎসব উদযাপন করা হয়েছে। দেশের অন্যান্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মতই রাজশাহী’র শহীদ মামুন মাহমুদ পুলিশ লাইন্‌স স্কুল অ্যান্ড কলেজে নতুন বই পাওয়ার আনন্দে মেতে উঠছে শিক্ষার্থীরা। এই উৎসবকে আরও রাঙিয়ে দিতে তাদের যাতায়াতের জন্য প্রতিষ্ঠানটিতে দুটি স্কুল বাস যুক্ত করা হয়েছে। বই উৎসব ও বাস দুটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র। সঙ্গে ছিলেন আরএমপি’র কমিশনার।  

আজ ১ জানুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সকাল ১১ টায় শহীদ মামুন মাহমুদ পুলিশ লাইন্‌স স্কুল অ্যান্ড কলেজ, রাজশাহী মাঠে “বই উৎস ২০২৪” ও স্কুল বাসের আনুষ্ঠানিক যাত্রা উপলক্ষ্যে বর্ণিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন, মেয়র, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এবং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আরএমপি’র কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার।  অতিথিবৃন্দ রঙিন বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে এ উৎসবের উদ্বোধন করেন।


এ সময় মেয়র বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী বিশ্বের মধ্যে একটা অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। দেশের নাগরিকদের আগামী দিনে দেশ পরিচালনা করবে, দেশকে আরও ওপরে নিয়ে যাবে, সেই সমস্ত শিশুদের মধ্যে নতুন বই পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। এই উদাহরণ কোথাও কোনো দেশে আছে বলে আমি জানি না। সেই কাজটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী করেছেন। বছরের প্রথম দিনই এই পাঠ্যপুস্তুকগুলো বাচ্চাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে নানারকম বাধা সত্ত্বেও।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি আরো বলেন তোমরা নতুন বইয়ের পাতা উল্টালেই এক ধরনের গন্ধ পাও। সেটা আমরা পাইনি। সরকার তোমাদের জন্য এই খরচ করছে কারণ, তোমরা পড়াশোনা করে মানুষের মতো মানুষ হবে। শুধু জিপিএ ফাইভ পেলেই চলবে না, এর চেয়ে প্রকৃত শিক্ষাটা জরুরি।

পুলিশ কমিশনার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের নতুন বই উপহার দিয়েছেন। এর মর্যাদা তোমাদের রাখতে হবে। মানুষের মত মানুষ হতে হবে। পরিশ্রম করে সুনাগরিক হয়ে মানুষের সেবা করতে হবে। তোমরাই একদিন ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার কিংবা রাজনীতিবিদ হয়ে দেশের নেতৃত্ব দেবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের এই প্রতিষ্ঠানে ১৮শত শিক্ষার্থী আছে। এই শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য নিজস্ব কোনো পরিবহণ ব্যবস্থা ছিল না। যাতায়াতে ভোগান্তি পোহাতে হত। সার্বিক দিক বিবেচনায় শিক্ষার্থীদের আসা যাওয়ার সুবিধার্থে এ স্কুল বাস দুটি চালু করা হলো। এই উদ্যোগের ফলে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা অনেকটা দুশ্চিন্তা মুক্ত হতে পারবেন।


উল্লেখ্য, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার যোগদানের পর হতে শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে নানাবিধ পদক্ষেপ নিয়েছেন। একজন উপ-পুলিশ কমিশনারের তত্ত্বাবধানে পুলিশ লাইন্‌স স্কুল অ্যান্ড কলেজকে উন্নতমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে তুলতে কাজ করছেন। শিক্ষকদেরও ইউনিফর্মের ব্যবস্থা করেছেন। 

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অ্যাডমিন অ্যান্ড ফিন্যান্স) মো: রশীদুল হাসান, পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস্) মোহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম, আরএমপি'র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণসহ শহীদ মামুন মাহমুদ পুলিশ লাইন্‌স স্কুল অ্যান্ড কলেজ, রাজশাহী’র অধ্যক্ষ ড. মো: গোলাম মাওলা, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

google.com, pub-6631631227104834, DIRECT, f08c47fec0942fa0